বাবার ভয়ঙ্কর অপকর্মের বর্ণনা দিল মেয়ে

১০:১৮:৪৯ বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ইতিহাস গড়ে নিজেকে ধরা ছোঁয়ার বাইরে নিয়ে গেলেন রাজ্জাক     • পাকিস্তানে প্রায় ম্যাচেই ফিক্সিং, চারপাশে ম্যাচ ফিক্সাররা: শোয়েব আখতার     • আমার জন্য দোয়া করবেন ও আমাকে হৃদয়ে রাখবেন : সাকিব     • ইসলামাবাদে 'আজাদি মার্চ', বিশাল জন-সমুদ্র থেকে ইমরানকে পদত্যাগে আল্টিমেটাম     • সাকিবের শাস্তি কমাতে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছে বিসিবি     • সরগরম ইলিশের বাজার, কেজি মাত্র ২০০ টাকা     • সৌদিতে নারীকর্মী পাঠানো বন্ধ করবে না সরকার : পররাষ্ট্রমন্ত্রী     • সাকিবকে ফাঁসানো সেই জুয়াড়ির কারণে এক ক্রিকেটার আত্মহ'ত্যা করেছিল     • ঘরে-বাইরে রাজনীতির শিকার সাকিব ও বাংলাদেশের ক্রিকেট!     • সাকিব তুমি দেশকে এক করেছ, আমরা তোমার সঙ্গেই আছি : তিশা

বুধবার, ০৯ জানুয়ারী, ২০১৯, ০২:৩৮:৩৯

বাবার ভয়ঙ্কর অপকর্মের বর্ণনা দিল মেয়ে

বাবার ভয়ঙ্কর অপকর্মের বর্ণনা দিল মেয়ে

ঢাকা: ইন্দ্রজিৎ সরকার: রাজধানী গেণ্ডারিয়ার দীননাথ সেন রোডের বাসার তৃতীয় তলার বারান্দায় দাঁড়িয়েছিল ১৩ বছর বয়সী শান্তা (ছদ্মনাম)। হঠাৎ সে এক শিশুর আর্তনাদ শুনতে পায়। শিশুটি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বারবার বলছিল- ‘মার কাছে যাব।’

শান্তা দ্রুত বাসার ভেতরে ঢুকে দেখতে পায়, প্রতিবেশী দুই বছরের আয়শাকে ধর্ষণের চেষ্টা করছে তার বাবা নাহিদ হোসেন। কী করা উচিত বুঝতে না পেরে সে ঘরের দরজা থেকে সরে যায়। একটু পরই নাহিদ বারান্দা থেকে শিশুটিকে ফেলে দিয়ে হত্যা করে। গতকাল মঙ্গলবার সে আদালতে নিজের বাবার ভয়ঙ্কর অপকর্মের এমন বর্ণনা দেয়। এ ঘটনায় গ্রেফতার নাহিদকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। এদিকে বুকের ধন হারানোর শোকে পাগলপ্রায় হয়ে পড়েছেন শিশুটির বাবা-মা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের ওয়ারী জোনের সহকারী কমিশনার সামসুজ্জামান বাবু সমকালকে বলেন, ঘটনার সাক্ষী হিসেবে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে শান্তা। তার বর্ণনা ও পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে নাহিদের অপরাধের প্রমাণ মিলেছে। সুস্থ হলে নাহিদকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। 
পুরান ঢাকার গেণ্ডারিয়ার দীননাথ সেন রোডে সাধনা ঔষধালয় গলির ৮২/সি-২ নম্বর টিনশেড বাসায় পরিবারের সঙ্গে থাকত ছোট্ট আয়শা। গত শনিবার বিকেলে বাসা থেকে বের হওয়ার পর সন্ধ্যায় পাশের একটি ভবনের সামনে তার রক্তাক্ত নিথর দেহ পাওয়া যায়।

স্বজনদের অভিযোগ, শিশুটিকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে। অভিযুক্ত নাহিদের শাস্তির দাবিতে সোমবার দুপুরে বিক্ষোভ করেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

তদন্ত-সংশ্নিষ্টরা জানান, শিশুর মৃত্যুর খবর পেয়ে শনিবার রাতে পুলিশ নাহিদের বাসায় যায়। তবে ওই সময় তাকে পাওয়া যায়নি। সে গ্রেফতার এড়াতে চারতলার ছাদে উঠে পাইপ বেয়ে পাশের ভবনের ছাদ দিয়ে পালিয়ে যায়। প্রাথমিক তদন্তে তার অপরাধ সংশ্নিষ্টতার প্রমাণ পাওয়ার পর রোববার রাতে আবার অভিযান চালায় পুলিশ। এবারও নাহিদ ছাদে উঠে একই কায়দায় পালানোর চেষ্টা করে। দুই-তিনটি বাড়ি পেরিয়ে যাওয়ার পর পাইপ বেয়ে নামার সময় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। ভবন থেকে পড়ে দুই পায়ে গুরুতর আঘাত পায় নাহিদ। তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যার কথা স্বীকার করেনি। তার দাবি, ঘটনার সময় সে নিজের বাসার বারান্দায় দাঁড়িয়ে ছিল। তখন শিশুটির পড়ে যাওয়ার শব্দ পেলেও কীভাবে সে পড়ে যায় তার জানা নেই।

আয়শার বাবা ইদ্রিস আলী জানান, নাহিদকে গ্রেফতারের সময়ই পুলিশ শান্তাকে উদ্ধার করে। তাকে একটি ঘরে আটকে রেখেছিল নাহিদ। বঁটি দিয়ে ভয় দেখিয়ে চুপচাপ থাকতেও বলেছিল। রোববার মুক্ত হওয়ার পর সে সবার সামনেই তার বাবার পাশবিক কর্মকাণ্ড তুলে ধরে। পরে গতকাল আদালতেও সাক্ষ্য দেয়।

আয়শার মামা মোহাম্মদ আলীর অভিযোগ, শনিবার বিকেলে খিচুড়ি খাওয়ানোর কথা বলে আয়শাকে নিজের ফ্ল্যাটে নিয়ে যায় নাহিদ। সেখানে ধর্ষণের পর সে শিশুটিকে বারান্দা থেকে নিচে ফেলে দেয়। ওই সময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত কয়েক যুবক নাহিদকে আটকে এ ব্যাপারে জানতে চান।

তবে নাহিদ দাবি করে, সে কিছুই জানে না।

স্থানীয়রা জানান, নাহিদের প্রথম স্ত্রী অনেক আগেই মারা গেছেন। দ্বিতীয় স্ত্রীও তাকে ছেড়ে চলে গেছেন।

কবর খুঁড়ে লাশ বের করার চেষ্টা মায়ের: বুকের ধন হারিয়ে শোকে পাগলপ্রায় হয়ে পড়েছেন আয়শার মা রাজিয়া সুলতানা। কাঁদতে কাঁদতে একটু পরপরই তিনি অচেতন হয়ে পড়ছেন। গতকাল ভোরে তিনি চলে যান জুরাইন কবরস্থানে। সেখানে কবর খুঁড়ে তিনি মেয়ের লাশ বের করার চেষ্টা চালান। পরে স্বজন ও উপস্থিত লোকজন তাকে সরিয়ে নেন। স্ত্রীকে সান্ত্বনা দিতে গিয়ে ইদ্রিস আলীও বারবার কান্নায় ভেঙে পড়ছেন।

রাজিয়া সুলতানা পেশায় খণ্ডকালীন গৃহকর্মী। তার স্বামী ইদ্রিস আলী ওয়েল্ডিংয়ের কাজ করেন। তাদের চার মেয়ের মধ্যে দ্বিতীয় ছিল আয়শা। পরের দুটি সন্তান যমজ। অভাব-অনটনের মধ্যেও চার সন্তানকে নিয়ে ছিল তাদের সুখের সংসার। আয়শার মৃত্যুতে এখন সেখানে শুধুই কান্না আর হাহাকার। সূত্র: সমকাল।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


মঙ্গলগ্রহে মিলল ভূগর্ভস্থ পানির সন্ধান, মিলতে পারে প্রাণের চিহ্ন!

মঙ্গলগ্রহে-মিলল-ভূগর্ভস্থ-পানির-সন্ধান-মিলতে-পারে-প্রাণের-চিহ্ন-

ডিভোর্স চেয়ে থানায় স্ত্রী, অসম্ভবকেই সম্ভব করে চমকে দিলো পুলিশ!

ডিভোর্স-চেয়ে-থানায়-স্ত্রী-অসম্ভবকেই-সম্ভব-করে-চমকে-দিলো-পুলিশ-

রোজাদার মুসল্লির সঙ্গে বিমান সেবিকার মানবিকতায় মুগ্ধ যাত্রী

রোজাদার-মুসল্লির-সঙ্গে-বিমান-সেবিকার-মানবিকতায়-মুগ্ধ-যাত্রী এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


পাঠকই লেখক


ক্ষেতের মধ্য পাল্টাপাল্টি কামড়ে সাপ-বৃদ্ধ দুইজনের মৃত্যু

ক্ষেতের-মধ্য-পাল্টাপাল্টি-কামড়ে-সাপ-বৃদ্ধ-দুইজনের-মৃত্যু

বিয়ের চার বছর পরে স্ত্রীকে প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে দিলেন স্বামী!

বিয়ের-চার-বছর-পরে-স্ত্রীকে-প্রাক্তন-প্রেমিকের-সঙ্গে-বিয়ে-দিলেন-স্বামী-

যা ঘটল তাতে রীতিমতো শিহরিত বিজ্ঞানীরা

যা-ঘটল-তাতে-রীতিমতো-শিহরিত-বিজ্ঞানীরা পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ