অজিত ডোভালসহ পাকিস্তানে গুপ্তচরের দায়িত্বে ছিলেন যেসব দুর্ধর্ষ 'র' এজেন্টরা!

০৯:০০:৩৩ বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

সর্বশেষ সংবাদ :

     • গ্রাহকদের জন্য যে জরুরি বার্তা দিল ইভ্যালি     • যে চার ক্রিকেটারকে অনুসরণ করতেন ছোট বেলা থেকে সাকিব তা নিজেই জানালেন     • লজ্জার হার নিয়ে মাঠ ছাড়ল ভারত     • পর্নভিডিও-কাণ্ডে গ্রেফতার স্বামী রাজ কুন্দ্রা, নিখোঁজ শিল্পা শেট্টি     • ৪ মুসলিমকে হ'ত্যার প্রতি'বাদে কানাডার রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ     • এক ফিলিস্তিনি নারীকে গু'লি করে হ'ত্যা     • খালেদা জিয়ার সর্বশেষ অবস্থা জানালেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক     • মানবিক দিক বিবেচনা করে খালেদা জিয়ার ব্যাপারে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে : আইনমন্ত্রী     • বিপর্যস্ত ভারতকে ১০ কোটি ডলারের জরুরি চিকিৎসা সামগ্রী দিল যুক্তরাষ্ট্র     • দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় রেকর্ডসংখ্যক মৃত্যু

শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯, ১২:৫৮:০২

অজিত ডোভালসহ পাকিস্তানে গুপ্তচরের দায়িত্বে ছিলেন যেসব দুর্ধর্ষ 'র' এজেন্টরা!

অজিত ডোভালসহ পাকিস্তানে গুপ্তচরের দায়িত্বে ছিলেন যেসব দুর্ধর্ষ 'র' এজেন্টরা!

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক : শুধু কুলভূষণ যাদব বা সর্বজিৎ সিং নন। ইসলামাবাদের ভ্রান্ত নীতির জেরে কিংবা চাপিয়ে দেওয়া গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে আরও অনেককেই বন্দি হতে হয়েছে পাকিস্তানে। কেউ দীর্ঘদিন জেল খেটে মুক্তি পেয়েছেন। কারও প্রাণদণ্ড হয়েছে। 

দীর্ঘদিন গুপ্তচরবৃত্তি করেও নির্বিঘ্নে দেশে ফিরেছেন একমাত্র অজিত ডোভাল। হ্যাঁ, বর্তমান ভারতের নিরাপত্তা উপদেষ্টা। মুসলিম সেজে সাত বছর পাকিস্তানে আন্ডার কভার এজেন্ট ছিলেন অজিত ডোভাল। বর্তমান নিরাপত্তা উপদেষ্টার ছদ্মনাম ছিল ‘০০৭’।

দীর্ঘদিন গুপ্তচরবৃত্তি করার পর আইএসআই এজেন্ট পরিচয়ে ১৯৮৮ সালে ‘অপারেশন ব্ল্যাক থান্ডার’-এর ঠিক আগে অমৃতসর স্বর্ণমন্দিরে ঢুকে অজিত ডোভাল ভিড়ে যান জঙ্গি শিবিরে। আগাগোড়া ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলেন বর্তমান জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল।

নাম ধর্ম পাল্টে পাকিস্তানে থেকে পরমাণু তথ্য পাচার করতেন মোহনলাল ভাস্কর ওরফে মোহাম্মদ আসলাম। চরবৃত্তির দায়ে ১৯৬৭ থেকে ১৯৭৪ পর্যন্ত বন্দি পাকিস্তানের জেলে। সাত বছর জেল খাটার পর হরিবংশ রাই বচ্চনের(অমিতাভ বচ্চনের বাবা) সুপারিশ এবং সিমলা চুক্তির সৌজন্যে মুক্তি পান। দেশে ফিরে তিরাশিতে লিখেছিলেন, ‘ম্যায় পাকিস্তান মে ভারত কা জাসুস থা’।

ভারতীয় সেনা থেকে ৪৮০ টাকা মাস মাইনে এজেন্ট ছিলেন কাশ্মীর সিং ওরফে মোহাম্মদ ইব্রাহিম। কিন্তু ১৯৭৩ সালে পাক সেনার হাতে ধরা পড়েন। তারপর ৩৫ বছর পাক জেলে কাটানোর পর মুক্তি পান। পাকিস্তানে থাকাকালীন আগাগোড়া অভিযোগ অস্বীকার করেছেন কাশ্মীর সিং। কিন্তু ২০০৮ সীমানা পেরিয়েই বলেছিলেন, ‘দেশের স্বার্থেই আমি চরবৃত্তি করেছি পাকিস্তানে।’

সন্ত্রাসবাদী এবং ভারতীয় গুপ্তচর তকমা দিয়ে সর্বজিৎ সিংকে ১৯৯১-এ প্রাণদণ্ডের নির্দেশ দেয় পাকিস্তান। তারপর শুধুই নাগাড়ে জেলখাটা আর প্রাণভিক্ষার আর্জি জানিয়ে গিয়েছেন। অবশেষে সেই আর্জিতে সাড়া দিয়েই ২০০৮ সালে সর্বজিতের প্রাণদণ্ড মুলতুবি করে পাকিস্তান। তবে বহু কূটনৈতিক প্রচেষ্টাতেও তাকে ভারতে ফেরানো যায়নি। ২০১৩ সালে লাহৌরের জেলেই প্রাণঘাতী হামলায় মৃত্যু হয় সর্বজিতের।

মাত্র একুশ বছর বয়সেই 'র'-এর নজরে পড়ে যান রবীন্দ্র কৌশিক ওরফে নবি আহমেদ শাকির। দু'বছর 'র'-এর অধীনে ট্রেনিং শেষ করে পাড়ি দেন পাকিস্তানে। পাকিস্তানে গিয়ে মুসলিম সেজে করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকে পাক সেনার মেজর পদে যোগ দেন।

সংসার পেতে ১৯৭৯ থেকে ১৯৮৩ পর্যন্ত ভারতে টানা তথ্য পাচার করেন রবীন্দ্র। ১৯৮৫ সালে পাক প্রশাসনের হাতে গ্রেফতার হন ‘দ্য ব্ল্যাক টাইগার’। ১৬ বছর জেল খেটে ২০০১ সালে মৃত্যু হয় যক্ষ্মায়।

বাবার ইচ্ছায় কাশ্মীরের গ্রাম থেকে উঠে আসা গুপ্তচর সেহমত খান। আলিয়া ভাট্টের অভিনয়ে হালে জনপ্রিয় এক নাম। সেহমতের দেওয়া তথ্যে ভর করেই ৭১ ভারতীয় যুদ্ধজাহাজের উপরে পাক হানার ছক ভেঙে দেয় দিল্লি। কিন্তু সেহমত দেশে ফেরেন অবসাদ নিয়েই।

১৯৮৯ সালে সেনা তথ্য পাচারের সময়ে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে শেখ শামিমকে হাতেনাতে ধরা হয়েছিল বলে দাবি ইসলামাবাদের। ১০ বছর পাকিস্তানে জেলবন্দি ছিলেন তিনি। কিন্তু ১৯৯৯ সালে চর সন্দেহেই ১০ বছর জেল খাটা শামিমকে ফাঁসিতে ঝোলায় পাকিস্তান। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও পাক গুপ্তচরকে ফাঁসি দেয়নি ভারত।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


ঘরে ঘরে পবিত্র কুরআনুল কারিমের পাণ্ডুলিপি বিতরণ করছে দক্ষিণ আফ্রিকা

ঘরে-ঘরে-পবিত্র-কুরআনুল-কারিমের-পাণ্ডুলিপি-বিতরণ-করছে-দক্ষিণ-আফ্রিকা

৬০০ মসজিদে ১৩০০ হাফেজ কুরআন বিনা পারিশ্রমে পড়াচ্ছেন খতম তারাবিহ

৬০০-মসজিদে-১৩০০-হাফেজ-কুরআন-বিনা-পারিশ্রমে-পড়াচ্ছেন-খতম-তারাবিহ

উপবাস নয়, রোজা হলো মুসলমানদের একটি ইবাদত

উপবাস-নয়-রোজা-হলো-মুসলমানদের-একটি-ইবাদত ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


টানা বৃষ্টিতে মক্কায় জলাবদ্ধতা

টানা-বৃষ্টিতে-মক্কায়-জলাবদ্ধতা

বাবা নেই ছোটকালেই, অভাবে মাত্র তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পড়া এই ঘুগনি বিক্রেতাকে নিয়ে পি.এইচ.ডি করছেন ৫ জন

বাবা-নেই-ছোটকালেই-অভাবে-মাত্র-তৃতীয়-শ্রেণী-পর্যন্ত-পড়া-এই-ঘুগনি-বিক্রেতাকে-নিয়ে-পি-এইচ-ডি-করছেন-৫-জন

মঙ্গলগ্রহে মিলল ভূগর্ভস্থ পানির সন্ধান, মিলতে পারে প্রাণের চিহ্ন!

মঙ্গলগ্রহে-মিলল-ভূগর্ভস্থ-পানির-সন্ধান-মিলতে-পারে-প্রাণের-চিহ্ন- এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


পাঠকই লেখক


ক্ষেতের মধ্য পাল্টাপাল্টি কামড়ে সাপ-বৃদ্ধ দুইজনের মৃত্যু

ক্ষেতের-মধ্য-পাল্টাপাল্টি-কামড়ে-সাপ-বৃদ্ধ-দুইজনের-মৃত্যু

বিয়ের চার বছর পরে স্ত্রীকে প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে দিলেন স্বামী!

বিয়ের-চার-বছর-পরে-স্ত্রীকে-প্রাক্তন-প্রেমিকের-সঙ্গে-বিয়ে-দিলেন-স্বামী-

যা ঘটল তাতে রীতিমতো শিহরিত বিজ্ঞানীরা

যা-ঘটল-তাতে-রীতিমতো-শিহরিত-বিজ্ঞানীরা পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ