১৫০০ কোটি টাকা পাওয়ার লোভে জিনের বাদশাকে দিলো সাড়ে ৩ কোটি টাকা!

০২:৩৮:০৪ মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯

সর্বশেষ সংবাদ :

     • ১৮ লাখ হাজির পদচারণায় মুখরিত পবিত্র মক্কা     • ১ আগস্ট থেকে বোরকা পরলেই ১৪ হাজার টাকা জরিমানা নেদারল্যান্ডে     • আদালতে রিফাত হত্যার দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিলেন মিন্নি     • অজিত ডোভালসহ পাকিস্তানে গুপ্তচরের দায়িত্বের ছিলেন যেসব দুর্ধর্ষ 'র' এজেন্টরা!      • ধর্ষণের শিকার কিশোরীর আত্মহত্যা, অভিযুক্তকে সৌদি থেকে ধরে আনলেন নারী পুলিশ কর্মকর্তা     • নেত্রকোনায় ব্যাগে শিশুর কাটা মাথা, গণপিটুনিতে ঘাতক নিহত     • হঠাৎই বুড়ো হয়ে যাচ্ছেন সবাই!     • কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় শরীরে ২৩ বার অস্ত্রের কোপ, সেই সাহসী কন্যাই এখন ব্যারিস্টার!     • আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি : প্রধান সাক্ষী থেকে স্বামী হত্যার আসামি     • হলি আর্টিজান হামলার গা শিউরে ওঠা প্রস্তুতির তথ্য জানাল জঙ্গির ছেলে

শনিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:২৯:২৩

১৫০০ কোটি টাকা পাওয়ার লোভে জিনের বাদশাকে দিলো সাড়ে ৩ কোটি টাকা!

১৫০০ কোটি টাকা পাওয়ার লোভে জিনের বাদশাকে দিলো সাড়ে ৩ কোটি টাকা!

সুনামগঞ্জ থেকে : জিনের মাধ্যমে দেড় হাজার কোটি টাকা দেবে বলে সাড়ে ৩ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার মামলায় শুক্রবার সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় কথিত জিনের বাদশাসহ ৩ আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন কথিত জিনের বাদশা দাবিদার হাফিজ কামরুল ইসলাম (২৬), তার পিতা আবদুল কাদির (৬০) ও তার মা রানু বেগম (৫০)। তাদের বাড়ি নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া থানার পুট বটতল গ্রামে।

জগন্নাথপুর থানার ওসি মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, গ্রেফতারকৃতরা প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। শুক্রবার এই প্রতারকচক্রকে গ্রেফতার করে সুনামগঞ্জ জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

তারা দীর্ঘদিন ধরে জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের সৈয়দপুর ইশানকোনা গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী রহমত আলীর বাড়িতে ভাড়া বাসায় বসবাস করে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল।

জানা গেছে, জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলি ইউনিয়নের মকরমপুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত মাস্টার আবদুল খালিকের ছেলে জগন্নাথপুর বাজারের ব্যবসায়ী মাওলানা ইমরান আহমদ জিনের মাধ্যমে দেড় হাজার কোটি টাকা পাওয়ার লোভে সাড়ে ৩ কোটি টাকা খুইয়ে এখন দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বিগত ২০১৮ সালে জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর গোয়ালগাঁও গ্রামের হাফিজ এনামুল হাসানের মাধ্যমে কথিত জিনের বাদশা হাফিজ কামরুল ইসলাম চক্রের সঙ্গে পরিচয় হয় ক্ষতিগ্রস্ত মাওলানা ইমরান আহমদের। 

একপর্যায়ে জিনের বাদশা দাবিদার হাফিজ কামরুল ইসলাম চক্রের প্রলোভনে পড়ে যান মাওলানা ইমরান আহমদ। তাকে বলা হয়, ‘শিরনির জন্য নগদ সাড়ে ৩ কোটি টাকা দেয়া হলে জিন তাকে দেড় হাজার কোটি টাকা দেবে।’ 

এতে মাওলানা ইমরান আহমদ জিনের বাদশাকে কয়েক দফায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা প্রদান করেন। পরে শর্তসাপেক্ষে মাওলানা ইমরান আহমদকে টাকা ভর্তি বলে ৫টি তালাবদ্ধ বড় ড্রাম ও ২টি বড় ট্রাংক দেয়া হয়। 

পরে এসব ড্রাম ও ট্রাংকের তালা ভেঙে দেখা যায় এতে টাকার পরিবর্তে কাগজ, ময়লা কাপড়চোপর ও খালি বস্তা রয়েছে। এদিকে এ ঘটনার পর কথিত জিনের বাদশা চক্র জগন্নাথপুর থেকে পালিয়ে যায়।

অবশেষে ২৩ এপ্রিল প্রতারণার শিকার মাওলানা ইমরান আহমদ বাদী হয়ে কথিত জিনের বাদশা হাফিজ কামরুল ইসলামসহ তার পরিবারের ৫ জনকে আসামি করে জগন্নাথপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। 

মামলা দায়েরের পর থানার এসআই হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশ দল নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া থানার পুট বটতল গ্রাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে জিনের বাদশা হাফিজ কামরুল ইসলাম ও তার মা-বাবাকে গ্রেফতার করেন।

একইসঙ্গে মামলার বাদী মাওলানা ইমরান আহমদের বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে তালাবদ্ধ বড় ৫টি তেলের ড্রাম ও ২টি বড় ট্রাংক। এতে টাকা থাকার কথা থাকলেও আছে বিভিন্ন কাগজ, ময়লা কাপড়-চোপড় ও খালি প্লাস্টিকের বস্তা।

এছাড়া আসামিদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে এসব তেলের ড্রাম ও ট্রাংকের তালার চাবি। গ্রেফতারকৃতদের শুক্রবার সুনামগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।



খেলাধুলার সকল খবর »

ইসলাম


৬০০ মসজিদে ১৩০০ হাফেজ কুরআন বিনা পারিশ্রমে পড়াচ্ছেন খতম তারাবিহ

৬০০-মসজিদে-১৩০০-হাফেজ-কুরআন-বিনা-পারিশ্রমে-পড়াচ্ছেন-খতম-তারাবিহ

উপবাস নয়, রোজা হলো মুসলমানদের একটি ইবাদত

উপবাস-নয়-রোজা-হলো-মুসলমানদের-একটি-ইবাদত

মহান আল্লাহই মানুষের সবচেয়ে বড় আশ্রয়দাতা

মহান-আল্লাহই-মানুষের-সবচেয়ে-বড়-আশ্রয়দাতা ইসলাম সকল খবর »

এক্সক্লুসিভ নিউজ


অজিত ডোভালসহ পাকিস্তানে গুপ্তচরের দায়িত্বে ছিলেন যেসব দুর্ধর্ষ 'র' এজেন্টরা!

অজিত-ডোভালসহ-পাকিস্তানে-গুপ্তচরের-দায়িত্বে-ছিলেন-যেসব-দুর্ধর্ষ--র--এজেন্টরা-

ডিভোর্স চেয়ে থানায় স্ত্রী, অসম্ভবকেই সম্ভব করে চমকে দিলো পুলিশ!

ডিভোর্স-চেয়ে-থানায়-স্ত্রী-অসম্ভবকেই-সম্ভব-করে-চমকে-দিলো-পুলিশ-

রোজাদার মুসল্লির সঙ্গে বিমান সেবিকার মানবিকতায় মুগ্ধ যাত্রী

রোজাদার-মুসল্লির-সঙ্গে-বিমান-সেবিকার-মানবিকতায়-মুগ্ধ-যাত্রী এক্সক্লুসিভ সকল খবর »

সর্বাধিক পঠিত


পাঠকই লেখক


ক্ষেতের মধ্য পাল্টাপাল্টি কামড়ে সাপ-বৃদ্ধ দুইজনের মৃত্যু

ক্ষেতের-মধ্য-পাল্টাপাল্টি-কামড়ে-সাপ-বৃদ্ধ-দুইজনের-মৃত্যু

বিয়ের চার বছর পরে স্ত্রীকে প্রাক্তন প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে দিলেন স্বামী!

বিয়ের-চার-বছর-পরে-স্ত্রীকে-প্রাক্তন-প্রেমিকের-সঙ্গে-বিয়ে-দিলেন-স্বামী-

যা ঘটল তাতে রীতিমতো শিহরিত বিজ্ঞানীরা

যা-ঘটল-তাতে-রীতিমতো-শিহরিত-বিজ্ঞানীরা পাঠকই সকল খবর »

জেলার খবর


ঢাকা ফরিদপুর
গাজীপুর গোপালগঞ্জ
জামালপুর কিশোরগঞ্জ
মাদারীপুর মানিকগঞ্জ
মুন্সিগঞ্জ ময়মনসিংহ
নারায়ণগঞ্জ নরসিংদী
নেত্রকোনা রাজবাড়ী
শরীয়তপুর শেরপুর
টাঙ্গাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়া
কুমিল্লা চাঁদপুর
লক্ষ্মীপুর নোয়াখালী
ফেনী চট্টগ্রাম
খাগড়াছড়ি রাঙ্গামাটি
বান্দরবান কক্সবাজার
বরগুনা বরিশাল
ভোলা ঝালকাঠি
পটুয়াখালী পিরোজপুর
বাগেরহাট চুয়াডাঙ্গা
যশোর ঝিনাইদহ
খুলনা মেহেরপুর
নড়াইল নওগাঁ
নাটোর গাইবান্ধা
রংপুর সিলেট
মৌলভীবাজার হবিগঞ্জ
নীলফামারী দিনাজপুর
কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট
পঞ্চগড় ঠাকুরগাঁ
সুনামগঞ্জ কুষ্টিয়া
মাগুরা সাতক্ষীরা
বগুড়া জয়পুরহাট
চাঁপাই নবাবগঞ্জ পাবনা
রাজশাহী সিরাজগঞ্জ